প্রথম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, অবস্থা আশঙ্কাজনক

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া ৭ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করছে এক বখাটে কিশোর। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে নির্যাতনের শিকার শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। এ ছাড়া বখাটেকে গ্রেপ্তারে রাতভর অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। গত শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৮টায় বানিয়াচং উপজেলার পুকড়া ইউনিয়নের কাকুড়া গ্রামে লোমহর্ষক এই ঘটনাটি ঘটেছে।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় মেয়েটিকে প্রথমে হবিগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে ও পরবর্তীতে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের বাসিন্দা রাজপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির জনৈক ছাত্রীকে মুখে গামছা বেঁধে তুলে নিয়ে যায় একই গ্রামের মৃত আরজত আলীর বখাটে ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়া (১৭)। মেয়েটিকে বাড়ির পার্শ্ববর্তী নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণের পর ফেলে রেখে চলে যায়। পরে ওই শিশু অসুস্থ অবস্থায় ঘরে এসে বসে থাকে। কিছুক্ষণ পর তার মামা বাড়িতে এসে রক্তক্ষরণের বিষয়টি দেখতে পান। রাত ১২টার দিকে তাকে হবিগঞ্জ হাসপাতালে আনা হয়।

জেলা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মেহেদী হাসান বলেন. মেয়েটির রক্তক্ষরণ বন্ধ হচ্ছিল না। অবস্থা বেগতিক হওয়ায় তাকে সিলেটে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদ মোবারক বলেন, ঘটনাটি আমাদেরকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। দোষী ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.